আমাদের কথা

বাংলা ভাষায় প্রকাশিত দেশের প্রথম ফ্রি মাসিক বিজ্ঞান ম্যাগাজিন হলো ব্যাঙাচি। ব্যাঙাচি যাত্রা শুরু হয় ব্যাঙের ছাতার বিজ্ঞান (বিসিবি) এর প্রথম জন্মবার্ষিকীতে অর্থাৎ ২০২০ সালের মে মাসে। তারপর থেকে নিয়মিত প্রকাশ হয়ে আসছে ব্যাঙাচি ম্যাগাজিন। ব্যাঙাচি ম্যাগাজিন প্রকাশিত হয় ব্যাঙের ছাতার বিজ্ঞান কর্তৃক।

পেছনের গল্প

ব্যাঙাচি বিনামূল্যে উন্মক্ত করে দিকে কাজ করে একদল স্বেচ্ছাসেবী মানুষ। পরিবারটির নাম হচ্ছে টিম ব্যাঙাচি আর এই টিম ব্যাঙাচি প্রতিমাসে নিস্বার্থ পরিশ্রম করে প্রকাশ করে ব্যাঙাচি ম্যাগাজিন।

ব্যাঙাচি, টিম ব্যাঙাচির গল্পের শুরুটা ব্যাঙের ছাতার বিজ্ঞানের প্রথম বর্ষ পূর্তির বেশ কয়েকদিন আগের। অসংখ্য ভালোবাসায় পূর্ণ দেশের সবচেয়ে খাঁটি এবং শীর্ষস্থানীয় বিজ্ঞান গ্রুপ ব্যাঙের ছাতার বিজ্ঞানের প্রথম বর্ষ উৎযাপন সম্পর্কৃত আলোচনা চলছে। বিভিন্ন মতামত দিচ্ছে গ্রুপের সদস্যগণ। এ নিয়ে আলোচনা হচ্ছে বিসিবি মডারেশন চ্যাট গ্রুপে। বিসিবির কর্ণধার এবং প্রতিষ্ঠাতা অ্যাডমিন জনাব নাঈম হোসেন ফারুকী আলোচনার এক পর্যায়ে ‘বিনামূল্যে বিজ্ঞান ম্যাগাজিন’ নামক একটি টার্ম তুলে ধরেন। বেশ অনন্য এই ধারণাকে সবাই সাধুবাদ জানায়। দায়িত্ব পরে মডারেটর তানভীর রানা রাব্বির ওপর ম্যাগাজিনের লে-আউট, প্রচ্ছদ এং সম্পাদনার সম্পর্কৃত বিষয়ের তদারকি করার জন্য। তখন একটি চ্যাট গ্রুপ খোলা হয় ম্যাগাজিন বিষয়ক আলোচনার জন্য। তখনও ম্যাগাজিনের জন্য ‘ব্যাঙাচি’ নামটি ঠিক করা হয় নি। তানভীর রানা রাব্বি একদিনের মধ্যে একটি মডেল উস্থাপন করে ম্যাগাজিনের নাম ‘ব্যাঙের ছাতার বিজ্ঞান” দিয়ে। নামটি বেশ বড় এবং প্রচ্ছদের সাথে বেমানান হওয়ায় আলোচনা হয় নতুন নাম নিয়ে। তখনও জনাব নাঈম হোসেন ফারুকী “ব্যাঙাচি“ নামটি নির্বাচন করেন এবং সবাই বেশ পছন্দও করে। সেই থেকে ম্যাগাজিনের নাম ব্যাঙাচি এবং ব্যাঙাচির দলের নাম টিম ব্যাঙাচি হয়ে যায়। নাম নির্বাচনের পর প্রথম ব্যাঙাচি কী বিষয়ক হবে সেটার আলোচনা শুরু হয়। ব্যাঙের ছাতার বিজ্ঞান গ্রুপে নিয়মিত প্রবন্ধ লেখার প্রতিযোগিতা হয়। তখন ‘ভূত’ বিষয়ক প্রতিযোগিতা মাত্র শেষ হয়েছে। সেজন্য টিম ব্যাঙাচির হাতে ভুতের বৈজ্ঞানিক ব্যবচ্ছেদ নিয়ে বেশ প্রবন্ধ হাতে থাকে। সেজন্য প্রথম ব্যাঙাচি ভূতের বৈজ্ঞানিক ব্যবচ্ছেদ নিয়েই করা হয়। প্রথম ব্যাঙাচি অর্থাৎ ভূত সংখ্যার বিভিন্ন কাজে প্রজেশ দত্ত, মাফরুহা জামান মীম, মাহতাব মাহদী, নাসিম আহমেদ, জাহিদুল ইসলাম রিয়াদ, সমুদ্র জিত সাহা এবং শুভ সালাউদ্দীন নতুন লেখা, লেখা সংগ্রহ, লেখা নির্বাচন, সম্পাদনা, প্রুফ রিডিং ইত্যাদি কাজ করেন। এছাড়াও আবু রায়হান, গোপাল কুন্ডু, হৃদয় হক এং অনান্যরা সহযোগিতা করেন।

এক পর্যায়ে ব্যাঙাচি প্রচ্ছদ কী হবে তা নিয়ে আলোচনা শুরু হলো। শেষ পর্যন্ত ‘স্কুবি ডু’ অবলম্বনে একটি কভার তৈরি করা হবে বলে স্থির করা হলো। কিন্তু প্রচ্ছদে থাকবে নাঈম হোসেন ফারকী কর্তৃক সৃষ্ট কাল্পনিক চরিত্র আক্কাস আলি এবং বক্কর ভাই। প্রচ্ছদের মুল কার্টুন আঁকলেন সুস্মিত ইসলাম, কার্টুন কালার এবং মূল প্রচ্ছদ তৈরি করলেন তানভীর রানা রাব্বি। সেই প্রচ্ছাদটিই বর্তমান ব্যাঙাচি ০১ (ভূত সংখ্যা) -র প্রচ্ছদ।

টিম ব্যাঙাচির কঠোর পরিশ্রম এবং আত্মোৎসর্গে মাত্র ৬ দিনে তৈরি বিজ্ঞান ম্যাগাজিন ব্যাঙাচি প্রথম সংখ্যা প্রকাশিত হলো বিসিবির প্রথম বর্ষপূর্তি অর্থাৎ ১৪ই মে, ২০২০ তারিখে। তারপর থেকেই দেশের প্রথম ফ্রি বিজ্ঞান ম্যাগাজিন ব্যাঙাচির পথ চলা শুরু হয়।

AllEscort